আন্তর্জাতিক

খাশোগি হত্যা : মার্কিন সিনেটের মুখোমুখি সিআইএ প্রধান

0Shares

মার্কিন তদন্ত সংস্থা সিআইএ’র প্রধান জিনা হ্যাস্পেল রুদ্ধদ্বার বৈঠকের মাধ্যমে সিনেটের বিভিন্ন কমিটিকে সৌদি সাংবাদিক ও কলাম লেখক খাশোগি হত্যার বিষয়ে সংক্ষিপ্ত বিবরণী দেবেন। সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সূত্রের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল তাদের প্রতিবেদনে জানিয়েছে, আগামী মঙ্গলবার সিনেটের সঙ্গে সিআইএ’র প্রধান জিনা হ্যাস্পেলের এ বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

পরিকল্পিত ওই বৈঠকটির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট একটি সূত্রের বরাত দিয়ে বার্তাসংস্থা রয়টার্স বলছে, মার্কিন সিনেটের তিনটি কমিটির ডেমোক্র্যাটিক ও রিপাবলিকান দলের নেতাদেরকে এই হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে সংক্ষিপ্ত বিবরণী দেবেন তিনি। কমিটি তিনটি হলো পররাষ্ট্র সম্পর্ক, সশস্ত্র সেবা ও আর্থিক অনুদানবিষয়ক কমিটি।

বৈঠক সংশ্লিষ্ট ওই সূত্রের বরাত দিয়ে বার্তাসংস্থা রয়টার্স আরও জানায়, মার্কিন সিনেটের গোয়েন্দাবিষয়ক কমিটিকে ইতোমধ্যে সিআইএ’র প্রধান জিনা হ্যাস্পেল খাশোগি হত্যা নিয়ে সংক্ষিপ্ত বিবরণী দিয়ে বিভিন্ন তথ্য জানিয়েছেন।

সিনেটের একটি সূত্রের বরাত দিয়ে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা বলছে, সিনেটের অন্য নেতারাও সিআইএ’র বিবরণী উপস্থাপনের ওই বৈঠকে উপস্থিত থাকতে পারেন। মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১১টায় ওই বৈঠক শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। তবে কোথায় এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে এ বিষয়ে কোনো স্থানের কথা নিশ্চিত করা হয়নি সিআইএ’র পক্ষ থেকে।

উল্লেখ্য, গত ২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুলে অবস্থিত সৌদি কনস্যুলেটে ঢোকার পর হত্যার শিকার হন সাংবাদিক ও ওয়াশিংটন পোস্টের কলাম লেখক জামাল খাশোগি। প্রথমে অস্বীকার করলেও শেষ পর্যন্ত সৌদি আরব স্বীকার করে তারাই খাশোগিকে হত্যা করেছে। এরপর এ ঘটনার তদন্তের জন্য তুরস্কের সেই কনস্যুলেটে যায় মার্কিন তদন্ত সংস্থা সিআইএ।

ঘটনার তদন্ত শেষে সিআইএর পক্ষ থেকে জানানো হয়, সৌদি রাজতন্ত্রের উচ্চ পর্যায় থেকেই খাশোগিকে হত্যার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। তারা ধারণা করছে, সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান সেই নির্দেশদাতা। তবে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সিআইএর তদন্ত প্রতিবেদন নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেন।

0Shares