খেলা

গৌতম গম্ভীরের ক্রিকেট ছাড়ার কারন জানা গেলো

118Shares

‘মনের বাঘ’-এর ডাকটা ত্রিশের কোটা পার করেই শুনতেন গৌতম গম্ভীর। ২০১৪ আইপিএলে সেই ডাক রূপান্তর হলো গর্জনে—‘সময় ফুরিয়েছে, গৌতি!’ সেই আইপিএল ছিল গম্ভীরের জন্য দুঃস্বপ্নের। টানা তিন ‘ডাক’ মারার পর কি জাতীয় দল, কি আইপিএল, কোথাও হারানো ফর্ম সেভাবে পুনরুদ্ধার করতে পারেননি ভারতের সাবেক এই ওপেনার। এমন যদি অবস্থা হয়, তাহলে সরে যাওয়া ছাড়া আর উপায় কী! সাবেক? হ্যাঁ, সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন গম্ভীর।

চার বছর আগের সেই আইপিএলে বাজে ফর্মের পর থেকেই গম্ভীরের মনের ভেতরকার ‘বাঘ’ তাঁকে বারবার বলেছে, সময় ফুরিয়ে এসেছে গম্ভীর। এবার অবসর নাও। জাতীয় দল কিংবা যেকোনো ম্যাচে আউট হলেই কথাটা তাঁর মনের মধ্যে বেজেছে। এত দিন পর সেই ‘মনের ডাকে সাড়া’ দিয়েই সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিলেন গম্ভীর। কাল রঞ্জি ট্রফিতে অন্ধ্র প্রদেশের বিপক্ষে ম্যাচটি হবে ৩৭ বছর বয়সী এই ব্যাটসম্যানের পেশাদার ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচ।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কাল প্রায় ১২ মিনিটের এক ভিডিওবার্তায় এই অবসরের ঘোষণা দেন গম্ভীর। ভারতের হয়ে তিনি সর্বশেষ টেস্ট খেলেছেন ২০১৬ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। ভিডিওতে গম্ভীর তাঁর অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্তের ব্যাখ্যা করলেন এভাবে, ‘ফিরোজ শাহ কোটলা—যেখানে সব শুরু হয়েছিল, সেখানেই সব শেষ হতে যাচ্ছে। রঞ্জিতে অন্ধ্র প্রদেশের বিপক্ষে ম্যাচটা হবে আমার শেষ। বিষয়টি আমার সঙ্গে সব সময়ই ছিল। ম্যাচে কিংবা অনুশীলনে। সব সময় মনের মধ্যে এই ভাবনা কাজ করেছে। ডিনারও ঠিকমতো করতে পারিনি। আইপিএলে ব্যর্থ হওয়ার পর মনে হলো আবারও শুনতে পাচ্ছি সেই কথাগুলো এবং এবার আরও জোরে। বুঝলাম সত্যিই সময় হয়েছে।’

২০০৭ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ও ২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনালে ভারতের জয়ে সর্বোচ্চ স্কোরার ছিলেন গম্ভীর। ভারতের হয়ে ৫৮টি টেস্ট ও ১৪৭ ওয়ানডে খেলেছেন স্টাইলিশ এই ব্যাটসম্যান।

118Shares