বাংলাদেশ

ঘরে বসেই ডিএনসিসির হোল্ডিং ট্যাক্স জমা

0Shares

সেবা সহজীকরণের অংশ হিসেবে অনলাইনে হোল্ডিং ট্যাক্স ও ট্রেড লাইসেন্স ফি আদায়ের লক্ষ্যে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) এবং পাঁচটি ব্যাংকের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে।

বুধবার গুলশানে নগর ভবনে এ সমঝোতা স্মারক সই হয়। ডিএনসিসির সঙ্গে সমঝোতা সই করা ব্যাংকগুলো হলো-সোনালী ব্যাংক লিমিটেড, জনতা ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক, ডাচ বাংলা ব্যাংক ও মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেড।

এ উপলক্ষে নগর ভবনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) ভারপ্রাপ্ত মেয়র মো. জামাল মোস্তফা বলেন, ‘এর ফলে এক নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হলো। এখন মানুষ ঘরে বসেই হোল্ডিং ট্যাক্স, ট্রেড লাইসেন্স ফি জমা দিতে পারবেন। মানুষের সময়, শ্রম, অর্থের সাশ্রয় হবে। নগরবাসীকে কাঙ্ক্ষিত সেবা প্রদানে ডিএনসিসি অঙ্গীকারাবদ্ধ। সেবা সহজীকরণের লক্ষ্যে আমরা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি।’

সভাপতির বক্তব্যে ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মেসবাহুল ইসলাম বলেন, ‘উন্নত বিশ্বের মতো আমরাও পেপারলেস অফিস, ক্যাশলেস ট্রানজেকশনের দিকে যাচ্ছি। অনলাইনে হোল্ডিং ট্যাক্স ও ট্রেড লাইসেন্স ফি আদায়ের মধ্য দিয়ে নাগরিকদের বিড়ম্বনা দূর হবে। সিটি কর্পোরেশনের ওপরও আস্থা বাড়বে।’

অনুষ্ঠানে ব্যাংকের ঊধ্র্বতন কর্মকর্তারা নগরবাসীর সর্বোচ্চ সেবা প্রদানের প্রতিশ্রুতি দেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে আরবান পাবলিক অ্যান্ড এনভারনমেন্টাল হেলথ সেক্টর ডেভেলাপমেন্টের উপ প্রকল্প পরিচালক উত্তম কুমার কর্মকার, ডিএনসিসি-র সচিব রবীন্দ্রশ্রী বড়ুয়া, প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মো. আবদুল হামিদ মিয়া, সোনালী ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক মো. আবদুল গফুর, জনতা ব্যাংকের মহাব্যবস্থাপক খন্দকার আতাউর রহমান, মার্কেন্টাইল ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কাজী মশিহুর রহমান, প্রাইম ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী রাহেল আহমেদ, ডাচ বাংলা ব্যাংকের উপব্যবস্থাপনা পরিচালক ও চিফ বিজনেস অফিসার মঞ্জুর মফিজ উপস্থিত ছিলেন।

0Shares