নানাবিধ

এরশাদকে চিকিৎসা সেবা নিতে না দিয়ে অবরুদ্ধ করে রাখার অভিযোগ

চিকিৎসা সেবা নিতে না দিয়ে অবরুদ্ধ করে রাখার অভিযোগ: শারীরিক অবস্থা খারাপ থাকার পরও পর্যাপ্ত চিকিৎসা সেবা নিতে না দিয়ে অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে প্রায় পনের দিন পর অপ্রত্যাশিতভাবে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতাল থেকে দলটির বনানী কার্যালয়ে হাজির হন তিনি। তবে গাড়িতে থেকে না নেমেই ফিরে যান তিনি।

এসময় এরশাদ বলেন, ‘অনেক অত্যাচার অবিচার সহ্য করেছি। তারপরও আমি বেঁচে আছি। আমাকে দমিয়ে রাখতে কেউ পারেনি, পারবে না। আমাকে চিকিৎসা নিতে দেয়া হচ্ছে না, দেশের বাইরেও যেতে দেবে না।’

জাতীয় পার্টির বনানী কার্যালয়ের সামনে সমবেত নেতাকর্মীদের উদ্দেশে এরশাদ বলেন, তোমাদের কোনো ভয় নেই, আমরা সবসময় নির্বাচন করেছি এবারও নির্বাচন করবো।

নিজের অসুস্থতা প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমার ব্লাড শটেজ রয়েছে। আমার বয়স হয়েছে, কিন্তু আমি মৃত্যুকে ভয় করি না। তোমাদের দোয়ায় জাতীয় পাটি বেঁচে আছে। ভবিষ্যতেও বেঁচে থাকবে, কেউ আমাদের কিছু করতে পারবে না।’

গাড়িতে বসেই এরশাদ বলেন, আজ বলতে এসেছি। আমাকে কেউ দমিয়ে রাখতে পারবে না। বেঁচে আছি, বেঁচে থাকবো। ২৭ বছর ধরে রাস্তায় রাস্তায় ঘুরেছি, পার্টি ছাড়ি নাই৷ সব নির্ভর করছে তোমাদের উপর। কেউ পার্টি ছেড়ে যেও না- আমাকে প্রতিশ্রুতি দাও৷

এভাবে কয়েক মিনিট গাড়িতে বসে বক্তব্য দিয়েই এরশাদ চলে যান। এ সময় এরশাদের কার্যালয়ের সামনে কর্মীরা স্লোগান ধরেন। বলেন, ‘এরশাদের কিছু হলে জ্বলবে আগুন ঘরে ঘরে। অ্যাকশন অ্যাকশন ডাইরেক্ট অ্যাকশন। আওয়ামী লীগের দালালেরা হুঁশিয়ার সাবধান।’

সূত্র: চ্যানেল আই অনলাইন, সময়ের কণ্ঠসর

ভি-ডি-ও-দেখুন:

405Shares